ভেক্টর রাশি


পদার্থবিজ্ঞানে এমন অনেক রাশি রয়েছে যেগুলো শুধুমাত্র মান দিয়ে সম্পূর্ণরূপে প্রকাশ করা যায় না মানের সাথে দিকের ও প্রয়োজন হয় সেই সকল রাশিকে বলা হয় ভেক্টর রাশি মানের সাথে দিক জড়িত থাকায় এদের যোগ বা গুণ সাধারণ বীজগাণিতিক নিয়মে করা সম্ভব হয় না যা কিছু বিশেষ নিয়মেই শুধুমাত্র করা যায়
ভেক্টর রাশির উদাহরণঃ বেগ, ত্বরণ, সরণ, টর্ক প্রভৃতি ।
আবার এমন অনেক রাশি রয়েছে যারা দিক ছাড়াই সম্পূর্ণতা প্রকাশ করতে পারে । যাদেরকে বলা হয় স্কেলার রাশি । স্কেলার রাশির উদাহরণঃ দ্রুতি, দৈর্ঘ্য, সময়, ভর, কাজ, চার্জ, কম্পাঙ্ক, বৈদ্যুতিক বিভব, স্বকীয় আবেশ গুণাঙ্ক, ঘাত, উষ্ণতা, তড়িৎ প্রবাহ প্রভৃতি ।
ভৌত জগতে যত প্রকার রাশি আছে তা হয় স্কেলার নয়তো ভেক্টর রাশি । মাঝামাঝি কিছু নেই ।

সংজ্ঞাতেই আমরা পড়েছি, যে সকল রাশির মান এবং দিক আছে তাই ভেক্টর রাশি ।
সেই দৃষ্টিকোণ থেকে,
                  ভেক্টর = রাশি মান × দিক 
ভেক্টরকে তার মান দ্বারা ভাগ করলে ঐ ভেক্টরের দিকে একটি একক ভেক্টরটি বা ভেক্টরটির দিক পাওয়া যায়

Written by
Jeion Ahmed
EEE CUET

Post a Comment

0 Comments