ভৌত রাশি ও পরিমাপ Physical QUANTITIES & Measurement


For Class:NINE-TEN
Lesson:1
Physical QUANTITIES & Measurement
(ভৌত রাশি ও পরিমাপ)
                                                   Whatever you should know                
v  পদার্থবিজ্ঞানের পরিসর, বিস্তৃতি, আলোচ্য বিষয়, বিভিন্ন শাখা প্রভৃতি ।
v  নিউটনিয়ান এবং আধুনিক পদার্থবিজ্ঞান ।
v  পদার্থবিজ্ঞানে বিভিন্ন বিজ্ঞানীদের অবদান
v  ভৌত রাশির একক ও মাত্রা
v  ভার্নিয়ার স্কেলে পরিমাপঃ স্লাইড ক্যালিপার্স ও স্ক্রু গজ ।
v  পরিমাপে ত্রুটি
[There is nothing more than the original book option]
বিজ্ঞানীদের অবদানঃ
থেলেসঃ
Ø  বিশ্বের প্রথম বিজ্ঞানী
Ø  সূর্য্য গ্রহণ সম্পর্কিত ভবিষ্যদ্বাণীর জন্য বিখ্যাত
টমাস ইয়ং:
Ø  আলোকের বাতিচার আবস্কার করেন ।
Ø  পদার্থের স্থিতিস্থাপকতার সূত্র দেন
Ø  মানব চোখে বিভিন্ন আলোর সংবেদনশীলতার প্রথম ব্যাখ্যা দেন ।
Ø  আলোর তরঙ্গ তত্ত্ব প্রদান করেন
গ্যালিলিওঃ
Ø  আধুনিক জ্যোতির্বিজ্ঞানের জনক ।
Ø  পড়ন্ত বস্তুর তিনটি সুত্র আবিস্কার ।
Ø  প্রক্ষিপ্ত বস্তুর গতিপথ (প্যারাবোলা) আবিস্কার ।
Ø  যৌগিক অণুবীক্ষণ যন্ত্র আবিস্কার করেন
Ø  পৃথিবী সূর্য্যকে কেন্দ্র করে ঘোরে মতবাদ দাতা
Ø  দোলক ঘড়ি আবিস্কার
Ø  প্রথম জ্যোতির্বিদ্যা বিষয়ক টেলিস্কোপ আবিস্কার করেন এবং এর সাহায্যে বৃহস্পতি গ্রহের চারটি উপগ্রহ ও  চাঁদের পিঠে পাহাড় আবিষ্কার করেন
Ø  পৃথিবীকে গোল বলার অপরাধে কারাগারে অন্ধ বধির হয়ে মারা জান ।
আইজ্যাক নিউটনঃ
Ø  বলবিদ্যার ভিত্তি স্থাপন করেন
Ø  প্রতিফলক টেলিস্কোপ আবিস্কার করেন
Ø  ক্যালকুলাস আবিস্কার করেন
Ø  আলোর কণিকা তত্তের প্রবক্তা
Ø  ১৬৮৭ সালে বিশ্ব নন্দিত গ্রন্থটি প্রকাশ করেন যাতে তিনি বিশ্বজনীন মহাকর্ষ সূত্র এবং গতিবিদ্যার তিনটি সূত্র প্রদান করেন
মাইকেল ফারাডেঃ
Ø  প্রথম ডায়নামো আবিস্কার করেন
আরনেস্ট রাদারফোর্ডঃ
Ø  ১৯১১ সালে আলফা কণা বিচ্ছুরণ পরীক্ষার মাধ্যমে পরমাণুর কেন্দ্রে ধনাত্মক নিউক্লিয়াস আবিস্কার করেন
Ø  সৌর মডেলের প্রবক্তা
Ø  αβ রশ্মি আবিস্কার করেন
Ø  ১৯০৮ সালে নোবেল পুরস্কার পান
মাক্স প্ল্যাঙ্কঃ
Ø  ১৯০০ সালে কোয়ান্টাম তত্ত্বের প্রবর্তন করেন
আলবার্ট আইনস্টাইনঃ
Ø  বিংশ শতাব্দীর বিখ্যাত বিজ্ঞানী
Ø  ১৯০৫ সালে মাত্র ২৩ বছর বয়সে আপেক্ষতার বিশেষ তত্ত্ব প্রদান করেন
Ø  ১৯২১ সালে নোবেল পুরস্কার পান
Ø  E mc2 সমীকরণটি প্রতিপাদন করেন
লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চিঃ
Ø  একজন চিত্রশিল্পী ছিলেন
Ø  পাখির ওড়া পর্যবেক্ষণ করে উড়োজাহাজের মডেল আবিষ্কার করেন
ডেমোক্রিটাসঃ
Ø  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়েও পদার্থের অবিভার্জ এককের ধারণা দেন এবং নাম দেন পরমাণু বা অ্যাটম
ডঃ গিলবার্টঃ
Ø  রানি এলিজাবেথের গৃহ চিকিৎসক ছিলেন
Ø  ঘর্ষণের ফলে তড়িৎ উৎপাদন ও চুম্বকত্ব নিয়ে গবেষণা করেন
কেপলারঃ
Ø  গ্রহের গতি সংক্রান্ত তিনটি সূত্র প্রদান করেন
Ø  গ্রহসমুহের উপবৃত্তাকার কক্ষপথের ধারণা দেন
কোপার্নিকাসঃ
Ø  সৌর কেন্দ্রিক তত্ত্বের ধারণা দেন
মাক্সওয়েলঃ
Ø  প্রথম আণবিক বেগ বণ্ঠন সম্পর্কে ধারণা দেন
Ø  দেখান যে, আলো এক প্রকার তড়িৎ চুম্বক তরঙ্গ
রনজেনঃ
Ø  X-Ray আবিস্কার করেন
নীলস বোরঃ
Ø  ১৯১৩ সালে কোয়ান্টাম তত্ত্বের সাহায্যে পরমাণুর মডেল আবিস্কার করেন
Ø  প্রথম স্থিতিশীল পরমাণুর ধারণা ব্যাখ্যা করেন এবং বর্ণালির ধারণা দেন ।
আর্কিমিডিসঃ
Ø  লিভারের নীতি আবিস্কার করেন ।
Ø  উদস্থিবিদ্যার সূত্র আবিস্কার করেন ।
পিথাগোরাস-
Ø  জ্যামিতিক উপপাদ্য ও কম্পমান তারের উপর উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন
আল মাসুদি-
Ø  প্রকৃতির ইতিহাস নিয়ে এনসাইক্লোপিডিয়া লেখেন ।
রজার বেকন-
Ø  পরীক্ষামূলক বৈজ্ঞানিক পদ্ধতির প্রবক্তা ।
স্নেল-
Ø  আলোর তরঙ্গ তত্তের উদ্ভাবক ও প্রতিসরণের সূত্র আবিষ্কার করেন ।
রবার্ট হুক-
Ø  পদার্থের স্থিতিস্থাপকতা নিয়ে গবেষণা করেন ।
ভন গুয়েরিক-
Ø  বায়ু পাম্প আবিস্কার করেন ।
রোমার-
Ø  বৃহস্পতির উপগ্রহ পর্যবেক্ষণ ও আলোর বেগ পরিমাপ করেন ।
জেমস ওয়াট-
Ø  তাপিয় ইঙ্গিন আবিষ্কার করেন
হান্স ক্রিশ্চিয়ান ওয়েরস্টেড-
Ø  তড়িৎ প্রবাহের চুম্বক ক্রিয়া আবিষ্কার করেন
আল-মার্কনি-
Ø  অধিক দূরে মোর্সকোডে সংকেত পাঠানোর ব্যবস্থা করেন
জগদীশচন্দ্র বসু-
Ø  রেডিও আবিস্কার করেন
বেকরেল-
Ø  ইউরেনিয়াম এর তেজস্ক্রিয়তা আবিস্কারক
প্রয়‌োজনীয় সংজ্ঞাঃ
পদার্থব‌িঞ্জানঃ বিজ্ঞানের যে শাখায় বস্তু ও শক্তির রুপান্তর নিয়ে আলোচনা করা হয় তাই পদার্থবিজ্ঞান
ভার্নিয়ার স্কেলঃ মূল স্কেলের ক্ষুদ্রতম ভাগের ভগ্নাংশকে নির্ভূল ভাবে পরিমাপের জন্য  মূল স্কেলের সাথে যে ক্ষুদ্রতম স্কেল ব্যবহার করা হয় তাকে ভার্নিয়ার স্কেল বলা হয়।
ভার্ন‌িয়ার ধ্রূবকঃ প্রধান স্কেলের ক্ষুদ্রতম এক ভাগের চেয়ে ভার্নিয়ার স্কেলের ক্ষুদ্রতম এক ভাগ কতটুকু ছোট তার পরিমাণকে ভার্নিয়ার ধ্রবক বলে ।
প‌িচঃ স্ক্রগজের টুপি একবার ঘোরালে রৈখিক স্কেল বরাবর এর যতটুকু সরণ ঘটে বা রৈখিক স্কেল বরাবর যে দৈর্ঘ্য এটি অতিক্রম করে তাকে স্ক্রগজের পিচ বলে
মাত্রাঃ কোনো ভৌত রাশিতে উপস্থিত মৌলিক রাশিগুলোর সূচককে রাশিটির মাত্রা বলে।
মৌলিক রাশিঃ যে সকল রাশি স্বাধীন বা নিরপেক্ষ অর্থাৎ অন্য রাশির ওপর নির্ভরশীল নয় বরং অন্যান্য রাশিই এদের ওপর নির্ভরশীল তাদেরকে মৌলিক রাশি বলে
লব্ধ রাশিঃ যে সকল রাশি মৌলিক রাশি থেকে লাভ করা যায় তাকে লব্ধ রাশি বলে।
এককের এস আই পদ্ধতিঃ বৈজ্ঞানিক তথ্যের আদান-প্রদান ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারের জন্য সারা বিশ্বে মাপজোখের একই রকম আদর্শের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। এ তাগিদ থেকে 1960 সাল থেকে দুনিয়া জুড়ে বিভিন্ন রাশির একই রকম একক চালুর সিদ্ধান্ত হয়। এককের এই পদ্ধতিকে বলা হয় এককের আন্তর্জাতিক পদ্ধতি বা এস আই পদ্ধতি।
পরিমাপ‌ে ত্রুটিঃ কোন রাশি পরিমাপে বাক্তিগত, পর্যবেক্ষণগত বা যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে যে ভুল হয় তাকে পরিমাপে ত্রুটি বলে 
যান্ত্র‌িক ত্রুট‌িঃ মাপ জোখের জন্য আমাদের যে যন্ত্রের প্রয়োজন হয়, সেই যন্ত্রে যদি ত্রুটি থাকে তাকে যান্ত্রিক ত্রুটি বলে।
পর্যব‌েক্ষণ জন‌িত ত্রুট‌িঃ পর্যবেক্ষকের পর্যবেক্ষণে যে ত্রুটি হয় তাকে পর্যবেক্ষণ জনিত ত্রুটি বলে ।
ব্যাক্ত‌িগত ত্রুট‌িঃ পর্যবেক্ষকের নিজের কারণে পাঠে যে ত্রুটি হয় তাকে ব্যক্তিগত ত্রুটি বলে।
ক‌িছু গুরূত্বপূর্ণ প্রশ্ন:
v  ভার্ন‌িয়ার স্ক‌েল ক‌েন ব‌্যবহার করব ? বা ভার্ন‌িয়ার স্ক‌েল ব্যবহারের সুব‌িধা ল‌িখ ?
উত্তরঃ সাধারণত র‌ৈখিক স্ক‌েলের সাহায্য‌ে আমরা ১মিলি‌মিটার পর্যন্ত পর‌িমাপ করত‌ে পার‌ি এর চ‌েয়ে সুক্ষ পরিমাপের জন্য মিলিমিটারের ভগ্নাংশ পরিমাপের প্রয়োজন হয় যা রৈখিক স্কেলের সাহায্যে পরিমাপ করা সম্ভব নয় এটি পরিমাপের জন্য ভার্ন‌িয়ার স্ক‌েলের প্রয়োজন হয় অর্থাৎ কোন দণ্ডের দৈর্ঘ্য নির্ভুলভাবে পরিমাপের জন্য মূল স্কেলের সাথে ভার্ন‌িয়ার স্ক‌েল ব্যবহার করতে হবে ।
v  ভার্নিয়ার স্কেলের সাহায্যে ক্ষুদ্রতম কত পর্যন্ত নির্ভুলভাবে মাপা যায় ?
উত্তরঃ ভার্নিয়ার স্কেল ব্যবহার করে আমরা সর্বনিম্ন ঐ স্কেলের ভার্নিয়ার ধ্রবকের মানের সমান খন্ডাংশ পরিমাণ মাপতে পারি। আর ভার্নিয়ার ধ্রবক হল মূল স্কেলের ক্ষুদ্রতম এক ঘরের মান ও ভার্নিয়ার স্কেলের ক্ষুদ্রতম এক ঘরের মানের বিয়োগফল অথবা (মূল স্কেলের ক্ষুদ্রতম এর ঘর)/(ভার্নিয়ারের মোট ভাগ সংখ্যা)
v  কীভাবে বুঝব‌ে য‌ে স্ক্রগজে যান্ত্রিক ত্রুটি বিদ্যমান ?
উত্তরঃ স্ক্রগজের নড়নক্ষম মাথা যখন স্থায়ী সমতল প্রান্ত বিশিষ্ট দন্ড স্পর্শ করে তখন বৃত্তাকার স্কেলের শূন্য দাগ ও রৈখিক স্কেলের শূন্য দাগ যদি না মিলে যায় তাহলে বোঝা যায় যে যন্ত্রে যান্ত্রিক ত্রুটি বিদ্যমান
v  মৌলিক ও লব্ধ রাশির পার্থক্য ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ যে সকল রাশি স্বাধীন বা নিরপেক্ষ যা অন্য কোনো রাশির উপর নির্ভর করে না তাকে মৌলিক রাশি বলে।আর যে সকল রাশি দুই বা ততোধিক মৌলিক রাশির সমন্বয়ে গঠিত হয় তাকে লব্ধ রাশি বলে। মৌলিক রাশির একক মৌলিক একক এবং লব্ধ রাশির একক লব্ধ একক।
v  পর‌িমাপ‌ে ত্রুট‌ি গুল‌ো ল‌িখ ? বা পরিমাপে কয় ধরনের ত্রুটি হতে পারে ?
উত্তরঃ পরিমাপে ত্রুটি ৩ ধরনের যথাঃ ১ যান্ত্রিক ত্রুটি
                                            ২ । পর্যবেক্ষণ জনিত ত্রুটি ।
                                             ব্যাক্তিগত ত্রুটি ।
প্রয়োজনীয় সূত্রঃ
স্লাইড ক্যাল‌িপার্স এর ক্ষ‌েত্রে,
    ভ‌ার্নিয়ার ধ্রূবক =   অর্থ্যাৎ, VC =
    বস্তুর দৈর্ঘ্য = মূল স্ক‌েলের পাঠ + (ভ‌ার্নিয়ার সমপাতন × ভ‌ার্নিয়ার ধ্রূবক) অর্থ্যাৎ, L = M + (C×VC)
স্ক্র গজ‌ের ক্ষ‌েত্র‌ে,
    লঘ‌িস্ঠ ধ্রূবক =  অর্থ্যাৎ, LC =
    ব্যাস = রৈখিক স্ক‌েলের পাঠ + (লঘ‌িস্ঠ ধ্রূবক × বৃত্তাকার স্ক‌েলের পাঠ) অর্থ্যাৎ , d = L + (C×LC)
ব্যাসার্ধ =  অর্থ্যাৎ, r =
গ‌োলক‌ের আয়তন = πr3
শতকরা ত্রুটি =  × 100%
গাণিতিক সমস্যাঃ
1. একটি স্লাইড কালিপার্সের প্রধান স্কেলের ক্ষুদ্রতম ঘরের মান 1mm এবং ভার্নিয়ার স্কেলের 20 ঘর প্রধান স্কেলের 19 ঘরের সমান । এই স্কেলের ভার্নিয়ার ধ্রবক কত ?
2. একটি স্লাইড কালিপার্সের প্রধান স্কেলের 39 ঘর ভার্নিয়ার স্কেলের 40 ঘরের সমান প্রধান স্কেলের 1 ঘরের মান 1mm হলে ভার্নিয়ার ধ্রবক কত ?
3. একটি স্ক্রগজের বৃত্তাকার স্কেলের ভাগ সংখ্যা 50 এবং বৃত্তাকার স্কেলটি সম্পূর্ণ এক পাক ঘুরালে এটি রৈখিক স্কেল বরাবর 0.5mm দৈর্ঘ্য অতিক্রম করে, স্ক্রগজের লঘিষ্ঠ গণন কত mm ?
4. স্লাইড কালিপার্সের সাহায্যে কোন দণ্ডের দৈর্ঘ্য পরিমাপ করতে গিয়ে মূল স্কেলের পাঠ 12cm এবং ভার্নিয়ার সমপাতন 7 পাওয়া গেল যদি মূল স্কেলের 19 ঘর ভার্নিয়ার স্কেলের 20 ঘরের সমান হয় তবে দণ্ডের দৈর্ঘ্য নির্ণয় কর
5.একটি স্ক্রগজের সাহায্যে কোন তারের ব্যাস পরিমাপ করতে গিয়ে রৈখিক স্কেলের পাঠ 10mm বৃত্তাকার স্কেলের পাঠ 5 পাওয়া গেল যদি যন্ত্রের লঘিষ্ঠ গণন 0.01mm হয় তবে তারের ব্যাস কত ?
6. একটি স্ক্রগজের সাহায্যে কোন তারের ব্যাস পরিমাপ করতে গিয়ে রৈখিক স্কেলের পাঠ 15mm বৃত্তাকার স্কেলের পাঠ 5 পাওয়া গেল যদি যন্ত্রের লঘিষ্ঠ গণন 0.01mm হয় তবে তারের প্রস্থছেদের ক্ষেত্রফল কত ?
7. একটি স্ক্রগজের সাহায্যে কোন গোলকের ব্যাস পরিমাপ করতে গিয়ে রৈখিক স্কেলের পাঠ 10cm বৃত্তাকার স্কেলের পাঠ 5 পাওয়া গেল যদি বৃত্তাকার স্কেলের ভাগ সংখ্যা ১০০ হয় তবে গোলকের আয়তন কত ?
8. আশিক পরীক্ষাগারে অভিকর্ষজ ত্বরণের মান 9.81 ms-2  নির্ণয় করল অপরদিকে যখন সে 0.01 kg ভরের কোন বাটখারাকে স্প্রিং নিক্তিতে ঝুলিয়ে দিল তখন দেখল 0.098 বল দেখাচ্ছে তার পরীক্ষালব্ধ অভিকর্ষজ ত্বরণ নির্ণয়ে শতকরা ত্রুটি নির্ণয় কর
9. সরল দোলকের একটি পরীক্ষায় কোন স্থানের অভিকর্ষজ ত্বরণ  10 ms-2 পাওয়া গেলে শতকরা ত্রুটি কত ? ঐ স্থানের প্রকৃত অভিকর্ষজ ত্বরণের মান 9.81 ms-2
10. স্লাইড কালিপার্সের সাহায্যে কোন দণ্ডের দৈর্ঘ্য পরিমাপ করতে গিয়ে মূল স্কেলের পাঠ 7mm এবং ভার্নিয়ার সমপাতন 11 পাওয়া গেল যদি মূল স্কেলের 19 ঘর ভার্নিয়ার স্কেলের 20 ঘরের সমান হয় তবে ভার্ণিয়ার ধ্রুবক এবং দণ্ডের দৈর্ঘ্য নির্ণয় কর
১১. একটি স্ক্রগজের বৃত্তাকার স্কেলের ভাগ সংখ্যা 80 এবং বৃত্তাকার স্কেলটি সম্পূর্ণ এক পাক ঘুরালে এটি রৈখিক স্কেল বরাবর 0.8mm দৈর্ঘ্য অতিক্রম করে, স্ক্রগজের লঘিষ্ঠ গণন কত cm ?


                                                                                                                                                                                    Edited By
Jeion Ahmed
EEE CUET


Post a Comment

0 Comments