কোন মৌলের কি কাজ ?

আমরা জানি আমাদের চারপাশের সকল পদার্থের গঠনকারী উপাদান পর্যায় সারণির ১১৮টি মৌল । এদের থেকে যেকোন সংখ্যক মৌল নিয়ে এসব পদার্থ গঠিত হয় । তবে আলাদা আলাদাভাবে এদের অনেক কাজ রয়েছে ।

1. হাইড্রোজেন (H)

রকেটে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার হয় ।

2.হিলিয়াম (He)

গ্যাস বেলুনে ব্যবহার হয় ।

3.লিথিয়াম (Li)

ব্যাটারি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

4.বেরিলিয়াম (Be)

মহাকাশযান তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

5.বোরন (B)

খেলার সামগ্রী তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

6.কার্বন (C)

হীরা তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

7.নাইট্রোজেন (N )

সার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

8.অক্সিজেন (O)

নিঃশ্বাসের সময় আমরা ব্যবহার করি ।

9.ফ্লোরিন (F)

পেস্ট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

10.নিয়ন (Ne)

বিজ্ঞাপনী লাইটে ব্যবহার হয় ।

11.সোডিয়াম (Na)

লবণে পাওয়া যায় ।

12.ম্যাগনেশিয়াম (Mg)

মশাল তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

13.অ্যালুমিনিয়াম (Al)

বিমান তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

14.সিলিকন (Si)

কাঁচের গ্লাস তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

15.ফসফরাস (P)

ম্যাচ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

16.সালফার (S)

কামানের গোলা তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

17.ক্লোরিন (C)

সুইমিং পুলে ব্যবহার হয় ।

18.আর্গন (Ar)

গ্যাস ঝালাই'র কাজে ব্যবহার হয় ।

19.পটাশিয়াম (K)

সার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

20.ক্যালসিয়াম (Ca)

ওষুধ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

21.স্ক্যানডিয়াম (Sc)

সাইকেল তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

22.টাইটেনিয়াম (Ti)

যুদ্ধ বিমান তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

23.ভ্যানাডিয়াম (V)

স্প্রিং তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

24.ক্রোমিয়াম (Cr)

গাড়ি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

25.ম্যাঙ্গানিজ (Mn)

শক্তিশালী যন্ত্র তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

26.আয়রন (Fe)

ব্রিজ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

27.কোবাল্ট (Co)

চুম্বক তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

28.নিকেল (Ni)

কয়েন তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

29.কপার (Cu)

বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

30.জিংক (Zn)

পিতলের তৈরি জিনিসে ব্যবহার হয় ।

31.গ্যালিয়াম (Ga)

কম্পিউটার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

32.জার্মিনিয়াম (Ge)

ক্যামেরার লেন্স তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

33.আর্সেনিক (As)

LED লাইট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

34.সেলেনিয়াম (Se)

ফটোকপি মেশিনে ব্যবহার হয় ।

35.ব্রোমিন (Br)

ফ্লিম তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

36.ক্রিপ্টন (Kr)

ফ্লাস লাইট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

37.রুবিডিয়াম (Rb)

সৌর বিদ্যুৎ যন্ত্রে ব্যবহার হয় ।

38.স্ট্রনটিয়াম (Sr)

আতসবাজি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

39.ইত্রিয়াম (Y)

লেজার কাটিং যন্ত্রে ব্যবহার হয় ।

40.জিরকোনিয়াম (Zr)

অপারেশনের যন্ত্রাংশ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

41.নায়োবিয়াম (Nb)

দ্রুত গতি সম্পন্ন ম্যাগ লেভ ট্রেন তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

42.মলিবডেনাম (Mo)

কাটিং টুলস তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

43.টেকনিশিয়াম (Tc)

সিটি স্ক্যান যন্ত্র তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

44.রুথিনিয়াম (Ru)

বৈদ্যুতিক সুইচ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

45.রোডিয়াম (Rh)

সার্চ লাইট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

46.প্যালাডিয়াম (Pd)

ধোঁয়া দূষণ রোধে ব্যবহার হয় ।

47.সিলভার (Ag)

অলঙ্কার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

48.ক্যাডমিয়াম (Cd)

রঙ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

49.ইন্ডিয়াম (In)

LCD মনিটর তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

50.টিন (Sn)

কৌটা তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

51.অ্যান্টিমনি (Sb)

চোখের কাজল তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

52.টেলুরিয়াম (Te)

টায়ার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

53.আয়োডিন (I)

লবণে ব্যবহার করা হয় ।

54.জেনন (Xe)

লাইট হাউজে ব্যবহার হয় ।

55.সিজিয়াম (Cs)

পারমাণবিক ঘড়ি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

56.বেরিয়াম (Ba)

এক্স রে তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

57.ল্যন্হানাম (La)

টেলিস্কোপ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

58.সিরিয়াম (Ce)

লাইটার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

59.প্রেজিওডিমিয়াম (Pr)

তেজস্ক্রিয়তা রোধক চশমা তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

60.নিওডিমিয়াম (Nd)

ইলেকট্রিক গাড়ি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

61.প্রোমিথিয়াম (Pm)

ডায়াল তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

62.সামারিয়াম (Sm)

প্লেনের ইলেকট্রিক মটরে ব্যবহার হয় ।

63.ইউরোপিয়াম (Eu)

রঙিন টেলিভিশন তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

64.গ্যাডোলিনিয়াম (Gd)

MRI যন্ত্রে ব্যবহার হয় ।

65.টারবিয়াম (Tb)

টিউব লাইট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

66.ডিসপ্রোজিয়াম (Dy)

উপাদানের সূক্ষ্মতা পরিমাপে ব্যবহার হয় ।

67.হলমিয়াম (Ho)

লেজার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

68.এরবিয়াম (Er)

অপটিক্যাল ফাইবার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

69.থিউলিয়াম (Tm)

চোখের লেজার সার্জারিতে ব্যবহার হয় ।

70.ইতের্বিয়াম (Yb)

লেজার ফাইবার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

71.লিউটেশিয়াম (Lu)

ফটো ডাইনোমিক মেডিসিনে ব্যবহার হয় ।

72.হাফনিয়াম (Hf)

সাবমেরিন তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

73.ট্যানটালাম (Ta)

মোবাইল ফোন তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

74.টাংস্টেন (W)

বৈদ্যুতিক বাতির ফিলামেন্ট তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

75.রোনিয়াম (Re)

রকেট ইঞ্জিনে ব্যবহার হয় ।

76.ওসমিয়াম (Os)

কলম তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

77.ইরিডিয়াম (Ir)

স্পার্ক প্লাগ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

78.প্লাটিনাম (Pt)

গবেষণা কাজের যন্ত্রাংশ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

79.গোল্ড (Au)

অলঙ্কার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

80.মার্কারি (Hg)

উচ্চ তাপমাত্রা মাপার থার্মোমিটার তৈরিতে ব্যবহার হয়

81.থ্যালিয়াম (Ti)

শীতলতা মাপার থার্মোমিটার তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

82.লেড (Pb)

বন্দুকের গুলি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

83.বিসমাথ(Bi)

আগুন নেভানোর যন্ত্রে ব্যবহার হয় ।

84.পেলোনিয়াম (Po)

এন্টি-স্ট্যাটিক ব্রাশ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

85.অ্যাসটেটিন (At)

তেজস্ক্রিয় ওষুধ তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

86.রেডন (Rn)

টিউমার , ক্যান্সার নিরাময়ের কাজে ব্যবহার হয় ।

87.ফ্রান্সিয়াম (Fr)

পারমাণবিক গবেষণার কাজে ব্যবহার হয় ।

88.রেডিয়াম (Ra)

ঘড়ি, যানবাহনের নির্দেশকে ব্যবহার হয় ।

89.অ্যাক্টিনিয়াম (Ac)

রেডিও ইমিউনোথেরাপিতে ব্যবহার হয় ।

90.থোরিয়াম (Th)

গ্যাস বাতি তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

91. প্রোট্যাকটিনিয়াম (Pa)

উচ্চ তেজস্ক্রিয়তার কারনে গবেষণা ছাড়া কোনো কাজে ব্যবহার হয় না ।

92.ইউরেনিয়াম (U)

পারমাণবিক চুল্লির প্রধান উপাদান ।

93.নেপচুনিয়াম (Np)

মহাকাশযানের জেনারেটরে , নিউট্রন নির্দেশক হিসেবে ব্যবহার হয় ।

94.প্লুটোনিয়াম (Pu)

পারমাণবিক বোমা তৈরিতে ব্যবহার হয় ।

95.আমেরিসিয়াম (Am)

ধোঁয়া নির্ণয় যন্ত্রে ব্যবহার হয় ।

96.কিউরিয়াম (Cm)

খনিজ পদার্থ অনুসন্ধানের কাজে ব্যবহার হয় ।

97.বার্কেলিয়াম (Bk)

তেমন কোনো কাজে ব্যবহার হয় না ।

98.ক্যালিফোর্নিয়াম (Cf)

খনিজ পদার্থ অনুসন্ধানের কাজে ব্যবহার হয় ।

99.আইনস্টাইনিয়াম (Es) - 103.লরেনসিয়াম (Lr)

এগুলো প্রকৃতিতে পাওয়া যায় না, অতিমাত্রায় বিষাক্ত পদার্থ, শুধুমাত্র আণবিক গবেষণা ছাড়া কোনো কাজে ব্যবহার হয় না ।

104.রাদারফোর্ডিয়াম (Rf) - 108.ওগানেসন (Og)

এগুলো বৈজ্ঞানিক গবেষণার বাইরে কোনো কাজে ব্যবহার হয় না ।

 

 

Post a Comment

0 Comments